দৌলতপুর প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়া দৌলতপুর থানার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি গত তিন মাসে ব্যাপক অবনতি হয়।
গত ২৩ শে জুন যোগদান করেন অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম।
রফিকুল ইসলাম যোগদানের পরে দৌলতপুর থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে বলে জানান এলাকাবাসী।
এলাকাবাসী বলেন, গত কয়েক মাসে দৌলতপুর থানা এলাকা খুনের রাজ্যে পরিণত হয়েছিল। প্রতি মূহুর্তে সকল মানুষের ভিতরে ভয় কাজ করছিল।যে মরছিল সে জানেনা কেন আমাকে মারা হলো। আবার যে মারছিল সে জানেনা কেন সে মানুষকে হত্যা করলো। তাই সকল সময় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করত। কখন না জানি আমিও হত্যার শিকার হই।
ওসি রফিকুল ইসলাম যোগদানের পরে জনমনে অনেকটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। দুই একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়া বড় কোনো ঘটনা দৌলতপুরে ঘটেনি।
এছাড়াও তিনি যোগাযোগ দানের পরে দৌলতপুর থানা দালাল মুক্ত হয়েছে। দালাল মুক্ত হওয়ার ব্যপারে এলাকাবাসী বলেন, ওসি রফিকুল ইসলাম যোগদানের পরে থানায় যে ব্যক্তির সমস্যা সে গেলেই কাজ হয়। কোন লোক বা দালাল ধরা লাগেনা। এবং সকল কাজ তাড়াতাড়ি হয়।
এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি কঠিন এক পরিস্থিতির মাঝে দৌলতপুর থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের জন্য হাল ধরেছি। আপনাদের সকলে সহযোগিতায় আমি অনেকটা সফল হয়েছি। আমি দৌলতপুর থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করছি।

Previous articleদৌলতপুরে গৃহবধূর আত্মহত্যা অভিযোগ
Next articleবাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার্স কল্যান সমিতির উদ্দেশ্য