দৌলতপুর প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়া দৌলতপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাত ভর দৌলতপুর থানা পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে উজ্জ্বল সরদারের বেডরুম থেকে একটি আগ্নেয় অস্ত্র ও বাড়ির বিভিন্ন জায়গাতে থাকা বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান বলেন, মরিচা ইউনিয়নের ভুরকা হাটখোলা পাড়ায় দুই দল গ্রামবাসী মুখোমুখি অবস্থান করছে এমন সংবাদপ্রাপ্ত হয়ে। আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য দৌলতপুর থানা পুলিশ, থানা থেকে রওনা দেয়। ভুরকা হাটখোলা পাড়া থানা থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দুরে হওয়াতে সেখানে পৌঁছাতে প্রায় ৩০ মিনিট সময় লাগে। এই সময়ের মধ্যেই সংঘর্ষ বাঁধে। পুলিশ ঘটনা স্থানে পৌছানোর সাথে সাথে লোকজন পালানোর চেষ্টা কালে থানা পুলিশ ১০ জন কে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে।

পুলিশি অভিযানে আটক আসামি রেফেজ জানায় উজ্জ্বল সরদারের বাড়িতে বৈঠক শেষে হামলা চালানো হয়েছে সেখানে আরও আসামি থাকতে পারে এবং হামলায় ব্যবহৃত কিছু থাকতে পার। তার দেওয়া তথ্য মতে , ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম, দফারফা ও গ্রাম পুলিশ দের সহযোগিতায় দৌলতপুর ও ভেড়ামারা সার্কেলর নেতৃত্বে থানা পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে উজ্জ্বল সরদারের বেডরুম থেকে একটি আগ্নেয় অস্ত্র উদ্ধার হয। এছাড়াও তার বাড়ির বিভিন্ন জায়গা থেকে বিপুল পরিমাণ আমদা, হাসুয়া সহ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে এই ঘটনা সব জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।