মোঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া ইবি থানাধীন কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের মহিষাডাঙ্গা -বিত্তিপাড়া খাবার হোটেলের  আড়ালে মধ্যবয়সী নারীদের দিয়ে চলছে রমরমা দেহ ব্যবসা।

.এমন অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার(০৬ জুন ২০২৩) ইং তারিখে বিত্তিপাড়া করিমপুর সংযুক্ত সড়ক সংলগ্ন শ্যাকম এর হোটেলে অভিযান চালিয়ে হাতেনাতে দুইজন মধ্যবয়সী নারী ও একজন কাস্টমার সহ হোটেল মালিক শ্যাকমকে আটক করেছে ইবি থানা পুলিশ। অভিযুক্ত হোটেল ব্যবসায়ী শ্যাকম (৪৫) বিভিন্ন স্থান থেকে মধ্যবয়সী নারীদের এনে খাবার হোটেল ব্যবসার আড়ালে চালিয়ে যাচ্ছিলেন এই দেহ ব্যবসা।

 সুত্রে জানা যায়,ইবি থানাধীন ১১ মাইল থেকে শুরু করে বিত্তিপাড়া করিমপুর সংযুক্ত সড়ক পর্যন্ত কুষ্টিয়া ঝিনাইদহ মহাসড়কের কোলঘেঁষে প্রায় অর্ধশত খাবার হোটেল গড়ে উঠেছে। যার মধ্যে প্রায় ৬/৭ টি হোটেল ইতিমধ্যে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে রমরমা দেহ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি কিছু হোটেল বেশ চাকচিক্য ভাবে নির্মিত হয়েছে যা কাস্টমারদের নজরে আসতে সুবিধা হচ্ছে।

গত তিন মাস পূর্বেও বিত্তিপাড়া তেল পাম্পের সামনে ও তেল পাম্পের সাথে দুই হোটেলে অবৈধ দেহ ব্যবসার অভিযোগে অভিযান চালিয়ে কয়েকজনকে আটক করা হয়। তবে মাস না পেরোতেই তারা জেল থেকে বের হয়ে ওই একই ব্যবসায় লিপ্ত হয় বলে জানা যায়। এসব ঘটনা অনেকেই জানার পরও মান সম্মানের ভয়ে মুখ খুলছেন না।  অপরদিকে এই নারী ব্যবসার কারণে এলাকার উঠতি বয়সের যুবকরা প্রতিনিয়ত হচ্ছেন বিপদগামী। ফলে যুবকদের অভিভাবকরা রীতিমতো তাদের সন্তানদের নিয়ে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন। এমন অপকর্মের প্রতিকার চান স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে ইবি থানার অফিসার আননূর যায়েদ জানান, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে হাতেনাতে ৪ জনকে আটক করেছি। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।