পর্যটন খাতে উন্নয়নের জোয়ারে একধাপ এগিয়ে গোল্ডেনস গ্রুপ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেটের সময়। মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৯৪ টাইম ভিউ

কক্সবাজার এবং কুয়াকাটায় পর্যটন খাতে উন্নয়নের জোয়ারে বিনিয়োগের সুবর্ণ সুযোগ।
মহাপরিকল্পনায় কক্সবাজার ও কুয়াকাটা হতে চলেছে এক অর্থনৈতিক গেম-চেঞ্জার। দেশের পর্যটনের হাব হয়ে উঠছে কক্সবাজার এবং কুয়াকাটা। প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক এখানে ভিড় করছে। উৎসব-পার্বনে হচ্ছে লাখো পর্যটকের ভিড়। তখন পৃথিবীর দ্বীর্ঘতম সৈকতের ছোট এই শহরগুলো এমনভাবে পর্যটক দ্বারা পরিপুর্ন হয় যে, সমুদ্রের ঢেউয়ের চেয়ে পর্যটকদের সংখ্যা বেশি মনে হয়। পর্যটন মৌসুম হিসেবে হিমশিম অবস্থা তৈরি হয় স্থানীয় হোটেল-মোটেল গুলোতে।

বিশ্বের দ্বীর্ঘতম ১২০ কি.মি. সৈকতে দিনদিন বাড়ছে বিদেশী পর্যটকদের সংখ্যাও। অব্যাহত পর্যটকদের চাপ সামলাতে সরকার নানা উদ্যোগ নিচ্ছে। গ্রহন করা হচ্ছে একের পর এক প্রকল্প। কক্সবাজার বিমান বন্দরকে গড়ে তোলা হচ্ছে দেশের অন্যতম সুন্দর বিমানবন্দর হিসেবে। আগামী বছরই রেলপথে সারা দেশের সঙ্গে যুক্ত হবে কক্সবাজার। চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত মেরিন-ড্রাইভ সড়ক নির্মানের পরিকল্পনা, কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক সম্প্রসারন প্রকল্প যোগাযোগের একও নতুন দিগন্তের উন্মোচন করবে।

মাতাবারি তাপ-বিদ্যুত কেন্দ্র, গভীর সমুদ্র বন্দর, দ্বীপ ভিত্তিক পর্যটন পার্ক, সাবরাং, নাফ ও সোনাদিয়ায় ইকো-ট্যুরিজম পার্ক, ডুয়েলগেজ ট্র্যাক নির্মান প্রকল্প, জালিয়ার দ্বীপ অর্থনৈতিক জোন, মেরিন-ড্রাইভ সড়ক, আন্তর্জাতিক শেখ কামাল স্টেডিয়াম, সমুদ্র গবেষণা ইন্সটিটিউট, মেডিকেল কলেজ, ভেটেনারি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, রামুতে দ্বিতীয় বিকেএসপি, টোলবিহীন ঢাকা-কক্সবাজার মহাসড়ক সহ ৩-লক্ষ কোটি টাকার মোট ৭৭ টি মেগা প্রকল্পের দৃশ্যমান চলছে যা সম্পন্ন হলে কক্সবাজার এক-লাফে উন্নত বিশ্বের পর্যটনভিত্তিক দেশগুলোর সাথে এক-কাতারে গিয়ে দাঁড়াবে। ফলে একইসাথে দেশের পর্যটন খাত থেকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন এবং বেকারত্ব দূরিকনে প্রধান ভূমিকা রাখবে।

পর্যটকদের নানা সুবিধা দিতে ধীরে ধীরে হলেও বে-সরকারি প্রতিষ্ঠান গুলোর উদ্যোগে গড়ে উঠেছে নানামুখী পর্যটনবান্ধব অবকাঠামো। সাম্প্রতিক সময়ে সরকারিভাবে কক্সবাজারের পর্যটন সম্ভাবনাকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে নেয়া হয়েছে টেকসই উন্নয়ন পরিকল্পনা। গঠনও করা হয়েছে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। কিন্তু যে হারে পর্যটক বাড়ছে, সে হারে বাড়ছে না পর্যটকদের সুযোগ-সুবিধা। তাদের জন্য মানসম্পন্ন আবাসিক হোটেল ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সুনিশ্চিত করতে বে-সরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হলেও সময়ের প্রয়োজনে তা খুবই অপর্যাপ্ত।

পর্যটকদের চাহিদা, বিশ্বমানের সুযোগ-সুবিধা ও বাস্তবতা অনুধাবন করে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার ও সাগরকণ্যা খ্যাত কুয়াকাটায় বাংলাদেসেহ্র অন্যতম হোটেল ডেভলপার কোম্পানি গোল্ডস্যান্ডস গ্রুপের গোল্ডস্যান্ডস হোটেল এন্ড রিজোর্ট লিমিটেড পর্যটক ও পরিবেশ-বান্ধব বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। তৈরি করছে আন্তর্জাতিক মানের বিলাশবহুল পাচ-তারকা হোটেল। যেখানে আপনিও বিনিয়োগ করে পাবেন হোটেল-স্যুইট বা আংশিক মালিকানা ক্রয়ের সুযোগ। মালিকানা ক্রয়ে পাওয়া যাবে সাফ-কাবলা রেজিস্ট্রেশন। আপনার ক্রয়কৃত সম্পদের মূল্য সময়ের সাথে সাথে বৃদ্ধি পাবে বহুগুন এবং বছর বছর আজীবনের জন্য পাবেন বাড়তি মুনাফা যা সুদমুক্ত হালাল আয়। প্রতিটি মালিকানা পরবর্তীতে পূনঃবিক্রয় ও হস্তান্তরযোগ্য। এসব হোটেলের মালিকানা গুলোতে একবার বিনিয়োগ করে লাইফ-টাইম রিটার্ন পাওয়া সম্ভব। পরিবার এবং কাছের মানুষের জন্য স্থায়ী ভবিষ্যত গড়ার এটি একটি নিরাপদ ব্যাবস্থা।

প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য কথা বলতে পারেন এই হটলাইন নাম্বারে, ০১৮৭৭৭১৫৩৩৩
আপনার অবর্তমানে আপনার পরিবার ও উত্তরাধিকারদের জন্য একটি অর্থনৈতিক সাপোর্ট হতে পারে পর্যটন নগরী কক্সবাজার এবং কুয়াকাটায় আন্তর্জাতিক ৫-তারকা হোটেলে মালিকানা। আর তাই দেরি না করে, পর্যটনে বিনিয়োগ করে দেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসুন।

এই মুহূর্তে সুরক্ষিত বিনিয়োগ খুজছেন?
যেখানে সম্পদের মূল্য বাড়বে কয়েকগুন ও ক্যাশ-প্রফিট থাকছে আজীবন।
গোল্ডস্যান্ডস গ্রুপ আপনাকে দিচ্ছে নিজের টাকায় নিজের হোটেল ব্যাবসা। যেখানে রিটার্ন পাবেন বহুগুন আর আয় করতে পারবেন সারাজীবন।
আমরা বাংলাদেশের নাম্বার-ওয়ান হোটেল ডেভলপার কোম্পানি গোল্ডস্যান্ডস হোটেল এন্ড রিসোর্ট লিমিটেড নিয়ে এসেছি কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় রেডি হোটেলের স্যুট ও আংশিক মালিকানা।

এখানে আপনি পাচ্ছেনঃ
সাফ-কাবলা রেজিস্ট্রেশন মালিকানা
আজীবন মুনাফা
প্রেস্টিজিয়াস লাইফ
নিজ হোটেলে অবকাশ-যাপন
পূনঃবিক্রয় ও হস্তান্তরযোগ্য মালিকানা
দ্বীর্ঘমেয়াদী কিস্তি সুবিধা নিয়ে আপনিও হতে পারেন একজন গর্বিত মালিক
বংশ-পরম্পরায় সূদমুক্ত হালাল আয়ের নিশ্চয়তা
হোটেল ওনারশীপ ফ্যাসিলিটিজ উপভোগ

বিস্তারিত জানতেঃ ০১৮৭৭৭১৫৩৩৩
গোল্ডস্যান্ডস গ্রুপ, পর্যটন ও মানুষের উন্নয়নে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর