গাংনীতে অনলাইন জুয়ার জড়িত ৯ জনের নামে মামলা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতাসহ ৬ জন জেল হাজতে

মেহেরপুরঃ
  • আপডেটের সময়। বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৭৪ টাইম ভিউ

মেহেরপুর প্রতিনিধি: মেহেরপুরে গাংনীতে অনলাইন জুয়ার সাথে জড়িত সন্দেহে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি শাহিদুজ্জামান শিপুসহ ছয়জনকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ সালের ৩০/২ এর ৩৫ ধারাই মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন।
গাংনী থানার এসআই জগদীশ এ ঘটনায় বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।যার মামলা নং-২২,তারিখঃ১৪-১২-২৩। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বাকী তিনজন পলাতক রয়েছে।

আটককৃতরা হলো, মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি শাহিদুজ্জামান শিপু, গাংনী সরকারী ডিগ্রি কলেজের অফিস সহকারী রবিউল ইসলাম, গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জুবায়ের হোসেন উজ্জল, বিপুল হোসেন, চঞ্চল হোসেন ও জিয়াউর রহমান। পলাতক ৩ জনকে গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা করছে পুলিশ।

বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি জানান, মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৮ দিকে শাহিদুজ্জামান শিপুর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অভিযান শেষে রাত ১১টার দিকে তাদেরকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছিল। পরে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, গাংনী বাজার সংলগ্ন উত্তরপাড়ায় শাহিদুজ্জামান শিপুর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অনলাইনে জুয়া পরিচালনা করা হয়। শিপুর মাধ্যমে অনেক মানুষ অনলাইন জুয়ার খেলার সাথে সম্পৃক্ত। এর মাধ্যমে টাকা পাচার হচ্ছে বিদেশে। এমন অভিযোগে ডিবি ও গাংনী থানা পুলিশের দু’টি দল রাতে শিপুর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অভিযান চালায়। তাদের ব্যবহৃত ১৪টি মোবাইল ডিভাইস জব্দ করে প্রাথমিক পরীক্ষা করে পুলিশ। দীর্ঘ সময় ধরে মোবাইল পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে রাত ১১টার দিকে তাদের ৬ জনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে যায়।
তিনি আরও জানান, তাদের কাছ থেকে ডিজিটাল ডিভাইস হিসেবে মোবাইল ও সিম কার্ড জব্দ করা হয়।
জিজ্ঞাসাবাদ ও ডিভাইসগুলো প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে অনলাইন জুয়ার সাথে জড়িত থাকার প্রমান পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গাংনী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সময়,শিপুর কাছে থেকে নগদ ২ লক্ষ ২৪ হাজার ৫’শ টাকা ও একটি মোবাইলে প্রায় ২ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা উদ্ধার করে।
মেহেরপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজমল হোসেনের নেতৃত্বে অভিযানে গাংনী থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের দুটি টীম উপস্থিত ছিলেন।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর