শিরোনামঃ
এখন টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সোহেল পারভেজের জন্মদিন আজ কুষ্টিয়া ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে ইবি হ্যান্ডবল দল ও বাস্কেটবল দলের (চ্যাম্পিয়ন) পদক গ্রহণ। ইবিতে গ্লোবাল সিটিজেনশিপ এন্ড সিভিক এডুকেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত। দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক গড়ার প্রত্যয়ে আইএফআইসি ব্যাংক বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। জনবাণী পত্রিকায় কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাংবাদিক হৃদয় কুষ্টিয়ায় ফুল বিক্রেতার গলা কাটা লাশ উদ্ধার ইবি’র ৪৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে কাল

অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পেলেন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান

🗞️
  • আপডেটের সময়। সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২
  • ১১৬ টাইম ভিউ

বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান। একই সঙ্গে তাকে টুরিস্ট পুলিশের প্রধানের দায়িত্ব দিয়েছেন সরকার। অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পাওয়ায় ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানকে পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া মোঃ খাইরুল আলম এবং জেলা পুলিশ কুষ্টিয়ার পক্ষ থেকে অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

সোমবার (১০ অক্টোবর, ২০২২) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে এ পদোন্নতি দেওয়া হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানকে অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি দিয়ে টুরিস্ট পুলিশের প্রধান করা হলো। অবিলম্বে এই আদেশ কার্যকর হবে।

উল্লেখ্য, বিগত ২০১৯ সালের ১৬ মে হাবিবুর রহমান ঢাকা রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে দায়িত্ব পান। তার আগে তিনি পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি (প্রশাসন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

কর্মক্ষেত্রে ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে হাবিবুর রহমান তিনবার বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও দুইবার রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) পেয়েছেন। তাছাড়া, সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষ, বেদে সম্প্রদায় ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে নিয়ে তার কাজ গুলো সমাজে ব্যাপক ভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা হিসেবে গুরুদায়িত্ব পালনের পাশাপাশি শুধু মানবিক কাজই নয়, হাবিবুর রহমান সম্পাদনা করেছেন আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ। যৌনপল্লীর শিশুদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়ানো, একাত্তরে পাক-হানাদারদের বিরুদ্ধে পুলিশের প্রতিরোধ যোদ্ধাদের খুঁজে বের করা, তাদের নিয়ে বই সম্পাদনা-এসব কাজের মধ্যে উল্লেখযোগ্য।

ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি’র দায়িত্ব নেওয়ার পর হাবিবুর রহমান তার আওতাধীন থানাগুলোতে সিসিটিভি বসিয়ে পুলিশি সেবা নিশ্চিত করেছেন। এরই মধ্যে তার এই উদ্যোগ পুলিশ বাহিনীর মধ্যে নজির তৈরি করেছে।

১৯৬৭ সালে গোপালগঞ্জের চন্দ্র দিঘলিয়া গ্রামে জন্ম নেওয়া হাবিবুর রহমান ১৭তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারে যোগ দেন সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে। বরাবরই চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত এই পুলিশ কর্মকর্তা বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সফলভাবে পালন করেছেন। পেশাগত সাফল্য তাকে নিয়ে গেছে ঈর্ষণীয় অবস্থানে।

পুলিশসহ সব মহলে একজন মানবিক কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত হাবিবুর রহমান ডিআইজি (প্রশাসন) হিসেবে পুলিশ সদর দপ্তরে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে কাজ করেছেন। অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন) হিসেবেও তার কাজের প্রশংসা ছিল সব মহলেই। ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে হাবিবুর রহমানের।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর দপ্তর) হিসেবে তার সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার কথা এখনো সবার মুখে মুখে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতি অবিচল আস্থা, বিশ্বাস ও ভালবাসার কারণে মেধাবী হাবিবুর রহমান কর্মক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়নসহ নানা ভাবে প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর