শিরোনামঃ
ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে লড়বেন অ্যাড. মুহাইমিনুর রহমান পলল কুষ্টিয়া দৌলতপুরে ২০ বোতল ফেনসিডিল ও পাখি ভ্যান সহ ১ জন আটক ইবি থিয়েটারের পথনাটক পরিবেশনা ইবিতে ওবিই কারিকুলাম প্রিপারেশন বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত নিজ জেলা কুষ্টিয়াতে অভিনন্দন না পেয়ে আক্ষেপ করে যা বললেন সাফ চ্যাম্পিয়ন নীলা কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ডি বি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র গুলি সহ আটক-২ কুষ্টিয়ায় পর্নোগ্রাফি আইনে ৬ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নামে নেত্রীর মামলা কুষ্টিয়ায় ছাত্রলীগ নেতা ও নেত্রীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন   কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সোহেল নামের এক যুবকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ৫৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ কুষ্টিয়ায় সন্তান জন্ম দিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করলেন মা

ছেউড়িয়ায় পরকিয়ার জেরে পরের স্ত্রী নিয়ে মনিরুল উধাঁও : দুশ্চিন্তায় দুই পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেটের সময়। মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৮৭২ টাইম ভিউ

কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার ছেউড়িয়া মন্ডলপাড়া এলাকার শরাফ মন্ডলের ছেলে মোঃ মনিরুল ইসলাম ভেকু (৩৮) নামের যুবক একই এলাকার লুতফর রহমানের মেয়ে আকলিমা খাতুন (৪০) কে নিয়ে গত ৭ দিন ধরে পালিয়ে গেছে। মনিরুল ইসলাম পেশায় একজন লেদ মিস্ত্রি তার একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। গত ১৪ তারিখ বুধবার দুপুর ৩ টার সময় তারা বাড়ি থেকে পালিয়েছে বলে জানিয়েছেন তাদের পরিবার। পরে
৩ দিন পর মনিরুলের কোন খোজ না পাওয়ায় তার মা মনোয়ারা বেগম ১৭ তারিখে কুমারখালী থানায় একটি নিখোজ জিডি করেন। এ ছাড়াও আকলিমা নামের ওই নারীর ১৮ বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। মনিরুল ইসলাম বাড়ি থেকে পরকিয়ার জেরে পালিয়ে যাওয়ার সময় তার পরিবারের সকলের কাছে গোপন করে প্রায় ২ লক্ষ টাকা কিস্তি তুলে নিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে তার পরিবারের লোকজন। অন্যদিকে স্ত্রী আকলিমা অন্যের সাথে পালিয়ে যাওয়ার পরেও ধন্না ধরে খুজে বেরাচ্ছে তার স্বামী কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়া এলাকার রেজাউল ইসলাম। আকলিমার স্বামী পেশায় একজন কৃষক। স্ত্রী এভাবে পালিয়ে যাওয়ার কারনে রাস্তায় রাস্তায় কান্না করে পাগলের মত প্রায় অবস্থা তার। এ ছাড়াও মনিরুলের ১২ বছর বয়সী ছেলেটি তার বাবাকে এভাবে অন্যের সাথে পালিয়ে যেতে দেখে কান্নায় ভেংগে পরে সে সহ তার পরিবারের লোকজন সমাজে মুখ দেখাতে পারছেনা। এ বিষয়ে মনিরুলের মা মনোয়ারা বেগম বলেন, আমার ছেলে মনিরুলক ইসলামকে ওই মহিলা ভুলভাল বুঝিয়ে ফুসলায়ে গোপনে আগে থেকে ২ লক্ষ টাকা কিস্তি তুলিয়েছে। তারপর আমার ছেলের সাথে পরকিয়ার জের ধরে পালিয়ে গেছে। আমার ছেলে প্রতিমাসে ২৫ হাজার টাকা বেতন পায়। এব টাকার লোভে পরে ওই মহিলা আমার ছেলের পিছনে লেগে ছিলো। আমার ছেলে মনিরুলের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বাবার এই কাজের জন্য ছেলেটি স্কুল এবং কোচিংয়ে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। যেই মেয়েটির সাথে আমার ছেলে পালিয়েছে সেই মেয়েটির এর আগেও অনেকজনের কাছ থেকে প্রেমের ফাদ পেতে টকা পয়সা লুটে নিয়েছে। আমি আমার ছেলেকে ফিরে পেতে চাই। আমার পরিবারের সংসারের হাল ধরার একমাত্র কারিগর আমার ছেলে মনিরুল ইসলাম। সে ফিরে না আসলে মনিরুলের স্ত্রী রত্না খাতুন ও ছেলে শিমুল সহ সবাই না খেয়ে মরতে হবে। কারন তার বাবা একজন বৃদ্ধ মানুষ।

বিশেষ দ্রষ্টব্য : যদি কোন সহদয় ব্যাক্তি নিখোঁজ আকলিমা খাতুন ও মনিরুল ইসলামের সন্ধান পেয়ে থাকেন তাহলে আপনারা অবশ্যই দ্রুত তার পরিবারকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হলো। এছাড়াও সঠিক খোঁজ দাতাকে তার পরিবার পুরস্কৃত করবেন বলে জানিয়েছেন।

যোগাযোগ মনিরুলের স্ত্রী রত্না খাতুন : ০১৭০৪-০৫৫৬৩০

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর