শিরোনামঃ
ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে লড়বেন অ্যাড. মুহাইমিনুর রহমান পলল কুষ্টিয়া দৌলতপুরে ২০ বোতল ফেনসিডিল ও পাখি ভ্যান সহ ১ জন আটক ইবি থিয়েটারের পথনাটক পরিবেশনা ইবিতে ওবিই কারিকুলাম প্রিপারেশন বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত নিজ জেলা কুষ্টিয়াতে অভিনন্দন না পেয়ে আক্ষেপ করে যা বললেন সাফ চ্যাম্পিয়ন নীলা কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ডি বি পুলিশের অভিযানে অস্ত্র গুলি সহ আটক-২ কুষ্টিয়ায় পর্নোগ্রাফি আইনে ৬ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নামে নেত্রীর মামলা কুষ্টিয়ায় ছাত্রলীগ নেতা ও নেত্রীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন   কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সোহেল নামের এক যুবকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ৫৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ কুষ্টিয়ায় সন্তান জন্ম দিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করলেন মা

কুষ্টিয়ায় বন্ধুকে হত্যার ৩ বছর পর পিবিআই এর হাতে যুবক গ্রেফতার

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়।
  • আপডেটের সময়। বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৫২০ টাইম ভিউ

মোঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়ঃ কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলার আমলাবাড়ী এলাকায়  তুষার ইমরান (২১) নামের যুবককে হত্যার পর ধান ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রাখা মামলার আসামী সজল মাহমুদ অন্তু (২৪) নামের এক যুবক ৩ বছর পর  পিবিআই এর হাতে গ্রেফতার হয়েছে। কুষ্টিয়া পিবিআই এর পুলিশ সুপার মোঃ শহীদ আবু সরোয়ারের নেতৃত্ব পিবিআই এর একটি অভিযানিক দল মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) আনুমানিক সন্ধ্যা ৭ টার সময় ঢাকা গাজীপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত সজল মাহমুদ অন্তু কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার মাজগ্রাম এলাকার মোতালেব হোসেনের ছেলে।

কুষ্টিয়া পিবিআই এর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সুপার মোঃ শহীদ আবু সরোয়ার।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৯ সালের জুলাই মাসের প্রথম দিকে কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলার আমলাবাড়ী এলাকার আব্দুল হান্নান খন্দকারের ছেলে তুষার ইমরানের সাথে মােবাইল ফোন ও মেমরী কার্ড নিয়ে তার বন্ধু কুমারখালী মাঝগ্রাম এলাকার মােতালেবের ছেলে অন্ত(২১) ও খােকসা গােপগ্রাম এলাকার রবিউল শেখের ছেলে
মােঃ জনি(১৯) এর সাথে কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। যার জের ধরে তুষার ইমরানের বন্ধু জনি ও জনির ভাই মােঃ মােস্ত(২৭) সহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন কে সাথে নিয়ে তুষার ইমরান কে মারধর করে।বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা হলেও তার কয়েকদিন পর গােপগ্রাম সকুর মােড়ে বটতলায়  তুষার ইমরান কে দেখতে পেয়ে অন্তু তাকে তুলে নিয়ে মারপিট করার হুমকি প্রদান করে। এরপর গত ২০২১ সালের ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যার পর থেকে সকাল পর্যন্ত যে কোন সময়ের মধ্যে আসামী অন্তু, জনি, মােস্ত, মােতালেব এবং নকিব সহ অজ্ঞাতনামা আসামীরা  তুষার ইমরানকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য ধান ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রেখে যায়। পরে নিহত তুষার ইমরানের মা মাছুরা বেগম(৪৬) বাদী হয়ে গত ২০২১ সালের (২১ অক্টোবর) কুষ্টিয়া খোকস থানায় আসামীদের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০৮, ধারা-৩০২/২০১/৩৪ পেনাল কোড জি,আর নং-৯৮/২০১৯। তুষার ইমরান  হত্যা মামলাটি খোকসা থানা পুলিশ তদন্ত করে। পরবর্তীতে মামলাটি সিআইডি কুষ্টিয়া গ্রহণ করে বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। মমলার এজাহারনামীয় ১নং আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদীর নারাজির প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি পিবিআই কুষ্টিয়াকে তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন।
পিবিআই তদন্ত শুরু করে ৩ বছর পর ঢাকা গাজিপুর থেকে প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর