রাজপথ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বাসস্থান: এমপি জর্জ

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়।
  • আপডেটের সময়। বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২
  • ১৪৫ টাইম ভিউ

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন, সমস্ত বিশ্বের মানুষ যেখানে কষ্টতে আছে বিশ্বের মানুষ যেখানে বেদনাতে আছে তখন একটা দল বিএনপি তারাই একমাত্র মানুষের এই কষ্টতে খুশি। তারা বিগত দিনে মানুষ`কে কষ্ট দিয়ে রাষ্ট ক্ষমতা দখল করেছেন।আজকে তারা আবারও মানুষ কে কষ্ট দিয়ে রাষ্ট ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করছে। রাজপথ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় বাসস্থান

যদি কোন প্রকার হটোগরিতা যদি কোনো প্রকার নৈরজ্য সৃষ্টির পায়তারা চালানো হয় আপনাদের রাষ্টহীন ভাষায় সাবধান করে দিতে চাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যদি রাস্তায় নামে ৭ দিন নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিলে সাত মিনিট ও রাস্তায় থাকতে পারবেন না।

বিএনপি সরকার আমলে (২০০৫) সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে (১৭ আগস্ট) কুমারখালী বাসস্ট্যান্ডে বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, সারাদেশে জামাত বিএনপি এই দেশে বিরোধি চক্র যারা ইতিপূর্বে এই দেশটা কে পাকিস্তানি আই এস আইয়ের এজেন্ট হিসাবে বাংলাদেশ কে পাকিস্তানের তাবেদার বানানোর চেষ্টা করেছিলো ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসের ভয়াবহ তম নৃশংস হত্যাকাণ্ড কাল।যখন এই বাংলাদেশের চাকা অন্য দিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলো খুনি জিয়া এবং মুস্তাকগন।তার পরে ১৯৮১ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ দেশে আসার পরে বাংলাদেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ছুটে বেড়িয়েছেন এর ফলে তার জীবনের উপর উনিশ থেকে কুড়িবার প্রাণ ঘাতি হামলা হয়েছে। সমস্ত কিছু উপেক্ষা করে যার ধ্বনিতে বঙ্গবন্ধু রক্ত প্রভাও মান তিনি বাঙালি জাতির মুক্তির লক্ষে এই বাংলার সমস্ত কিছু উপেক্ষা করে তিনি এগিয়ে চলেছেন। ১৭ আগষ্ট ২০০৫ সালে সমস্ত দেশে পাচশত বোমা হামলা করে জঙ্গিবাদ এবং সন্তাসবাদের উত্থান ঘটিয়েছিলো তারই প্রতিবাদে এদেশের সমস্ত মানুষ একত্রিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে রাষ্ট ক্ষমতায় নিয়ে আসে।

কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের ব্যানারে কুমারখালী পৌরসভা থেকে কয়েক হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে বাসস্ট্যান্ডে এসে বিক্ষোভ সমাবেশ শেষ হয়।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর