শিরোনামঃ
এখন টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সোহেল পারভেজের জন্মদিন আজ কুষ্টিয়া ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে ইবি হ্যান্ডবল দল ও বাস্কেটবল দলের (চ্যাম্পিয়ন) পদক গ্রহণ। ইবিতে গ্লোবাল সিটিজেনশিপ এন্ড সিভিক এডুকেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত। দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক গড়ার প্রত্যয়ে আইএফআইসি ব্যাংক বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। জনবাণী পত্রিকায় কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাংবাদিক হৃদয় কুষ্টিয়ায় ফুল বিক্রেতার গলা কাটা লাশ উদ্ধার ইবি’র ৪৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে কাল

বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্মচারী ও মাইক্রোবাস চালকের অসাবধানতা কেড়ে নিল ১১ তরতাজা প্রাণ। আরও তিন জন মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করছে

রেজাউল করিম রেজা
  • আপডেটের সময়। শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০২২
  • ২১৬ টাইম ভিউ

শুক্রবার ছুটির দিন। রোজকার পড়াশুনার চাপ থেকে ক্ষণিকের মুক্তি পেতে শিক্ষকের সঙ্গে ঝরনা দেখতে গিয়েছিল তরতাজা প্রাণগুলো। হয়তো যাওয়ার আগে মাকে বলে গিয়েছিল পছন্দের খাবার রাঁধতে। শিক্ষকদের হয়তো প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, ঝরনা থেকে ফিরে পড়াশুনাতে আরও মন দেবে। তবে সব হয়তো, হয়তোই থেকে গেল। জীবনের সব হিসাবনিকাশ অকালেই চুকিয়ে একসঙ্গেই লাশ হয়ে ফিরলেন তরতাজা তরুণ প্রাণগুলো।

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে একটি লেভেল ক্রসিংয়ে উঠে পড়া পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের সবাই ছিলেন চট্টগ্রামের হাটহাজারীর আমানবাজারের আর অ্যান্ড জে প্রাইভেট কেয়ার নামে কোচিং সেন্টারের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।

শুক্রবার সকালে শিক্ষক, ছাত্রসহ তারা ১৮ জন মাইক্রোবাসে করে খৈয়াছড়া ঝরনায় ঘুরতে গিয়েছিলেন। ফেরার পথে শুক্রবার বেলা সোয়া ১টার দিকে মীরসরাইয়ের বড়তাকিয়া রেলস্টেশন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

এক তুড়িতে সব সম্ভব করার বয়সটি পার করেছিলেন তারা। মা-বাবাকে ছেড়ে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে হঠাৎ করে বড় হয়ে যাওয়ার লাইসেন্স পাওয়ার বাঁধভাঙা আনন্দ ছিল তাদের চোখে। ছিল এক সময় সত্যি সত্যিই বিশ্বজয়ের আকাঙ্ক্ষা। সেই আনন্দই ধরা দেয় ঝরনা দেখতে যাওয়ার সময় কোচিং সেন্টারের সামনে তোলা একটি গ্রুপ ছবিতে।

তবে মুহূর্তের ভুলে থমকে যায় স্বপ্নবাজ সেই তরুণদলের জীবন। বিশ্ব করে মা-বাবার মুখে হাসি ফোটানো আর হয় না। হাজারো স্বপ্নের ইতি ঘটে ট্রেনের ধাক্কায়। সেই গাদাগাদি করে বসা মাইক্রোবাসের ভেতর শেষ মুহূর্তে বন্ধু আর শিক্ষকদের সঙ্গী করেই একসঙ্গে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তারা।

শুক্রবার সকালে শিক্ষক, ছাত্রসহ তারা ১৮ জন মাইক্রোবাসে করে খৈয়াছড়া ঝরনায় ঘুরতে গিয়েছিলেন। ফেরার পথে শুক্রবার বেলা সোয়া ১টার দিকে মীরসরাইয়ের বড়তাকিয়া রেলস্টেশন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

এক তুড়িতে সব সম্ভব করার বয়সটি পার করেছিলেন তারা। মা-বাবাকে ছেড়ে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে হঠাৎ করে বড় হয়ে যাওয়ার লাইসেন্স পাওয়ার বাঁধভাঙা আনন্দ ছিল তাদের চোখে। ছিল এক সময় সত্যি সত্যিই বিশ্বজয়ের আকাঙ্ক্ষা। সেই আনন্দই ধরা দেয় ঝরনা দেখতে যাওয়ার সময় কোচিং সেন্টারের সামনে তোলা একটি গ্রুপ ছবিতে।

তবে মুহূর্তের ভুলে থমকে যায় স্বপ্নবাজ সেই তরুণদলের জীবন। বিশ্ব করে মা-বাবার মুখে হাসি ফোটানো আর হয় না। হাজারো স্বপ্নের ইতি ঘটে ট্রেনের ধাক্কায়। সেই গাদাগাদি করে বসা মাইক্রোবাসের ভেতর শেষ মুহূর্তে বন্ধু আর শিক্ষকদের সঙ্গী করেই একসঙ্গে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তারা।

 

 

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর