শিরোনামঃ
একটি অসম প্রেমের অকাল সমাপ্তি ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকা আত্মহত্যা করেছেন কুষ্টিয়া র‌্যাবের অভিযানে ২৮ বোতল ফেনসিডিল সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট নাজমুলের হাতে ভুয়া এডিসি (ডিএমপি) ডিবি আটক ইবিতে ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ হেরোইন সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আগামী ১৪ই আগষ্ট “প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে চিরঞ্জীব, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব” কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ইবির শেখ রাসেল হলে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের সেরা অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। কুষ্টিয়ায় দুটি হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

চাঁদার টাকা না পেয়ে লালন ভক্ত সাধুকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সন্ত্রাসী টিক্কা বাহিনীর হামলা

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ মাহাফুজ হৃদয়।
  • আপডেটের সময়। শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০২২
  • ১৯৮ টাইম ভিউ

মোঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়ঃ কুষ্টিয়া কুমারখালীর কয়া এলাকায় ৫০ হাজার টাকা চাঁদা না পেয়ে লালন অনুসারী সাধু ফকির হাসান হাফিজ শাহ (৬০) এর উপর হামলা চালিয়েছে কয়া এলাকার আজিজ ট্যান্ডেলের ছেলে টিক্কা (৩৫) ও একই এলাকার মৃত কলিমুদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে দিলিপ বিশ্বাস জৌতিষি দিলিপ (৬০) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জন সন্ত্রাসীরা।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ফকির হাসান হাফিজ শাহর ছেলে পুষ্প (২৮) বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সন্ত্রাসী টিক্কা ও দিলিপ বিশ্বাস জৌতিষি দিলিপ সহ তার চাঁদাবাজ চক্রের লোকজন প্রায়ই ফকির হাসান হাফিজ শাহ এর নিকট থেকে ৫০,০০০/= (পঞ্চাশ হাজার) টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিলো। এই চাঁদার টাকা দিতে
রাজি না হলে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজরা গত ২৮ জুলাই
দুপুর অনুমানিক ৩ টার সময় সময় কয়া বাজার এলাকার বাবুর দোকানের সামনে থেকে চাঁদার টাকার জন্য ফকির হাসান হাফিজ শাহকে বিভিন্ন রকম হুমকী ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।

তারই জের ধরে শুক্রবার ২৯ জুলাই সকাল অনুমানিক সাড়ে ৮ টার সময় কয়া বাজারের পঁচার চায়ের দোকানের সামনে থেকে টিক্কা ও তার লোকজন দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র দিয়ে ফকির হাসান হাফিজ শাহকে বেধরকভাবে মারপিট করে গুরুতরভাবে আহত করেছে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে ফকির হাসান হাফিজ শাহ চিকিৎসাধীন অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে৷

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়,
অভিযুক্ত টিক্কার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী, চাদাবাজি সহ বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়াও টিক্কা এর আগে অস্ত্র সগহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলো।

কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এখনো পর্যন্ত এমন কোন অভিযোগ হাতে পাইনি। যদি এমন ঘটনা ঘটে থাকে থানায় অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর