শিরোনামঃ
কুষ্টিয়া ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে ইবি হ্যান্ডবল দল ও বাস্কেটবল দলের (চ্যাম্পিয়ন) পদক গ্রহণ। ইবিতে গ্লোবাল সিটিজেনশিপ এন্ড সিভিক এডুকেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত। দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক গড়ার প্রত্যয়ে আইএফআইসি ব্যাংক বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। জনবাণী পত্রিকায় কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাংবাদিক হৃদয় কুষ্টিয়ায় ফুল বিক্রেতার গলা কাটা লাশ উদ্ধার ইবি’র ৪৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে কাল প্রতারণার মাধ্যমে টাকা তুলে নেয়ায় দিশেহারা দরিদ্র শাজাহান

চাঁদার টাকা না পেয়ে লালন ভক্ত সাধুকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সন্ত্রাসী টিক্কা বাহিনীর হামলা

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ মাহাফুজ হৃদয়।
  • আপডেটের সময়। শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০২২
  • ২৩৭ টাইম ভিউ

মোঃ রবিউল ইসলাম হৃদয়ঃ কুষ্টিয়া কুমারখালীর কয়া এলাকায় ৫০ হাজার টাকা চাঁদা না পেয়ে লালন অনুসারী সাধু ফকির হাসান হাফিজ শাহ (৬০) এর উপর হামলা চালিয়েছে কয়া এলাকার আজিজ ট্যান্ডেলের ছেলে টিক্কা (৩৫) ও একই এলাকার মৃত কলিমুদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে দিলিপ বিশ্বাস জৌতিষি দিলিপ (৬০) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জন সন্ত্রাসীরা।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ফকির হাসান হাফিজ শাহর ছেলে পুষ্প (২৮) বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সন্ত্রাসী টিক্কা ও দিলিপ বিশ্বাস জৌতিষি দিলিপ সহ তার চাঁদাবাজ চক্রের লোকজন প্রায়ই ফকির হাসান হাফিজ শাহ এর নিকট থেকে ৫০,০০০/= (পঞ্চাশ হাজার) টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিলো। এই চাঁদার টাকা দিতে
রাজি না হলে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজরা গত ২৮ জুলাই
দুপুর অনুমানিক ৩ টার সময় সময় কয়া বাজার এলাকার বাবুর দোকানের সামনে থেকে চাঁদার টাকার জন্য ফকির হাসান হাফিজ শাহকে বিভিন্ন রকম হুমকী ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।

তারই জের ধরে শুক্রবার ২৯ জুলাই সকাল অনুমানিক সাড়ে ৮ টার সময় কয়া বাজারের পঁচার চায়ের দোকানের সামনে থেকে টিক্কা ও তার লোকজন দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র দিয়ে ফকির হাসান হাফিজ শাহকে বেধরকভাবে মারপিট করে গুরুতরভাবে আহত করেছে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে ফকির হাসান হাফিজ শাহ চিকিৎসাধীন অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে৷

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়,
অভিযুক্ত টিক্কার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী, চাদাবাজি সহ বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়াও টিক্কা এর আগে অস্ত্র সগহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলো।

কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এখনো পর্যন্ত এমন কোন অভিযোগ হাতে পাইনি। যদি এমন ঘটনা ঘটে থাকে থানায় অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর