শিরোনামঃ
কুষ্টিয়া ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে ইবি হ্যান্ডবল দল ও বাস্কেটবল দলের (চ্যাম্পিয়ন) পদক গ্রহণ। ইবিতে গ্লোবাল সিটিজেনশিপ এন্ড সিভিক এডুকেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত। দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক গড়ার প্রত্যয়ে আইএফআইসি ব্যাংক বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। জনবাণী পত্রিকায় কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাংবাদিক হৃদয় কুষ্টিয়ায় ফুল বিক্রেতার গলা কাটা লাশ উদ্ধার ইবি’র ৪৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে কাল প্রতারণার মাধ্যমে টাকা তুলে নেয়ায় দিশেহারা দরিদ্র শাজাহান

কুষ্টিয়ায় ইবি শিক্ষকের স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আমিন হাসান
  • আপডেটের সময়। মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২
  • ২২৬ টাইম ভিউ

আমিন হাসানঃকুষ্টিয়ায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের প্রফেসর নজরুল ইসলামের স্ত্রী নুরজাহান পারভিন (৪০) এর মরদেহ উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ।

গতকাল সোমবার রাত ১০ টার দিকে কুষ্টিয়া শহরস্থ পুলিশ লাইনের পেছনে প্রফেসর নজরুলের বসবাসকৃত নিজ বাড়ি থেকে স্ত্রী নুরজাহান পারভিনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

জানাযায় প্রফেসর নজরুল ও নুরজাহান পারভিন দম্পত্তির ঘরে এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়েই তাদের বসবাস ছিলো।

গতকাল অস্বাভাবিক ভাবে নুরজাহান পারভিন একটি ঘরের দরজা আটকিয়ে দেয় পরে আনেক ডাকাডাকি করার পরেও সে ভিতর থেকে আওয়াজ দিলেও আর দরজা খোলে না।

নুরজাহানের এমন আচরণ দেখে তার বড় মেয়ে বিষয়টি আবগত করে তার মামা ও নানার বাড়ির লোকজনকে, পরে তার মামা সহ সেখানকার লোকজন আসলে আনেক ডাকাডাকির পরেও যখন নুরজাহান দরজা খুলে না তখন তারা সিদ্ধান্ত নেয় দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢোকার, এক পর্যায়ে তারা লোহার সাবল দিয়ে দরজা ভেঙ্গে দেখতে পায় নুরজাহানের মরদেহ নিচে পড়ে আছে এবং ওড়না ফ্যানের সাথে বাধা ছিলো।
পরে বিষয়টি কুষ্টিয়া সদর থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এবিষয়ে মৃত নুরজাহান পারভিনের স্বামী প্রফেসর নজরুল ইসলাম জনান, আমাদের ভিতরে গতকাল কোন প্রকার ঝামেলা হয়নি কিন্তু আমার স্ত্রী নুরজাহান এমন কান্ড ঘটিয়েছে কেন তার কোন কিছুই বুঝতে পারছিনা।

প্রফেসর নজরুল ও নুরজাহান দম্পত্তির অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে জানান, আম্মু গতকাল হটাৎ করে আমাদের সামনেই ঘরের দরজা আটকিয়ে দেয় পরে আর দরজা খুলেনি আম্মু পরে আমার মামা ও নানার বাড়ির লোকজনের উপস্থিতে দরজা ভেঙ্গে দেখতে পেলাম আম্মুর লাশ।

এ বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সাব্বিরুল আলম জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর আরো বিস্তারিত জানানো যাবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর