শিরোনামঃ
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ইবির শেখ রাসেল হলে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের সেরা অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। কুষ্টিয়ায় দুটি হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেলেন ইবি আইন বিভাগের শিক্ষক ড.মাহবুব বিন শাহজাহান ইবি ছাত্রলীগের কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ শেখ আমাদের খেলার মাঠ কেড়ে নিও না কুষ্টিয়া যুব উন্নয়ন পরিষদ এর বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত। বর্তমান সমাজের বাস্তব রূপ” …….কাজী মারুফ কুষ্টিয়ায় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল, আটক -৭

সাংবাদিকের উপর হামলা, ৫ দিনেও হয়নি মামলা

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আমিন হাসান
  • আপডেটের সময়। সোমবার, ১৬ মে, ২০২২
  • ১০৬ টাইম ভিউ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সাংবাদিক মিজানুর রহমানের উপর হামলার পাঁচদিন অতিবাহিত হয়েছে। থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও মামলা রুজু হয়নি এখনও। অপরদিকে মামলা না হওয়ায় অভিযোগ তুলে নিতে নিয়মিত হুমকি ও চাপ প্রয়োগ করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের লোকজনের বিরুদ্ধে।

অভিযোগকারী সাংবাদিক মিজানুর রহমান দৈনিক স্বতঃকন্ঠ পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি।

লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, মিজান ব্যবসায়ীর পাশাপাশি সাংবাদিকতা করেন। সাম্প্রতিক সময়ে চরসাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিএফ চাল আত্মসাতের অভিযোগে তথ্য সংগ্রহ করেন তিনি। বিষয়টি টের পেয়ে গত বুধবার (১০ মে) রাত ১০ টার দিকে সাদিপুর বাজার এলাকায় চেয়ারম্যানেরর দুই ছেলে উকিল ওরফে ফিরোজ (৩৪) ও নাজমুল হোসেন (৩০) এবং তাঁর সঙ্গীরা হাসুয়া, রড, কাঠের ও বাশের লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে মিজান নিলা ফোলা জখম হয়। এছাড়াও তাঁর বিকাশ দোকানের ড্রয়ারে থাকা নগদ টাকা, তথ্য সম্বলিত ১৫ হাজার টাকা মূল্যের স্মার্টফোন ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সিম নিয়ে যায়।

আরো জানা গেছে, হামলায় সাংবাদিক মিজান আহত হলেও হাসপাতালে যেতে বাঁধা প্রদান করে চেয়ারম্যান বাহিনী। পরে গভীর রাতে পাশ্ববর্তি পাবনা জেলার পুলিশের সহযোগীতায় পাবনা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। ঘটনার পরদিন গত বৃহস্পতিবার থানায় লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন তিনি।

এবিষয়ে চরসাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নং সদস্য (মেম্বর) আবু বক্কর বলেন, চেয়ারম্যান অসৎ উদ্দেশ্যে চাল ওজনে কম দিয়ে অবশিষ্ট রেখেছে। আর সেই তথ্য সংগ্রহ করার অপরাধে বুধবার রাতে সাংবাদিক মিজানের উপরের চেয়ারম্যানের দুই ছেলেসহ সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালায়। ঘটনাটি চোখের সামনেই ঘটেছে।

সাংবাদিক মিজানুর রহমান বলেন, পরিষদের গুদামে ভিজিএফ চাল অবশিষ্ট আছে এমন অভিযোগ পেয়ে তথ্য সংগ্রহ করি। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চেয়ারম্যানের দুই ছেলে সহ তাঁর সন্ত্রাসী বাহিনী রাতে হামলা চালায় আমার উপর। আমার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে লুটপাট করেছে। তথ্য সম্বলিত ফোনটিও নিয়ে গেছে। থানায় অভিযোগ দিয়েছি পাঁচদিন হলো। কিন্তু এখনও মামলা রুজু হয়নি। অভিযোগ তুলে নিতে নিয়মিত হুমকি ও চাপ দিচ্ছে চেয়ারম্যানের লোকজন।

চরসাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মেছের আলী খাঁ বলেন, সাংবাদিকের হামলার ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। আমার ছেলেরা ছিলো কি না, তা জানিনা, তবে ক্ষতিয়ে দেখতে হবে। আর ঘটনা যাঁরাই ঘটাক, তার একটা সুষ্ঠ বিচার হওয়া দরকার। তিনি আরো বলেন, সাংবাদিকের হারানো মোবাইলটা আমার হেফাজতে আছে।

চরসাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, জনগণের মাধ্যমে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিএফ চাল আত্মসাতের খবর শুনেছি। বিষয়টি অত্যন্ত লজ্জাজনক। আর এমন তথ্য সংগ্রহ করার সাংবাদিকের উপর হামলা করা হয়েছে। আহত সাংবাদিকের খোঁজখবর নিয়েছি। ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হোক।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, লিখিত অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। মোবাইলটা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। মামলা রুজু করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল বলেন, চাল আত্মসাতের লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। আর সাংবাদিককে হামলার ঘটনাটি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর