শিরোনামঃ
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ইবির শেখ রাসেল হলে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের সেরা অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। কুষ্টিয়ায় দুটি হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেলেন ইবি আইন বিভাগের শিক্ষক ড.মাহবুব বিন শাহজাহান ইবি ছাত্রলীগের কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ শেখ আমাদের খেলার মাঠ কেড়ে নিও না কুষ্টিয়া যুব উন্নয়ন পরিষদ এর বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত। বর্তমান সমাজের বাস্তব রূপ” …….কাজী মারুফ কুষ্টিয়ায় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল, আটক -৭

খোকসা উপজেলার বেতবাড়িয়া ইউনিয়নের সুনামধন্য চেয়ারম্যান বাবুল আখতারের রাজনৈতিক ভাবমূর্তি নষ্ট করতে একটি কুচক্রী মহলের পায়তারা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • আপডেটের সময়। রবিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৮৬ টাইম ভিউ

কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলার বেতবাড়িয়া ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান ও খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেতা বাবুল আখতারের নামে একটি কুচক্রী মহল তাদের স্বার্থ হাসিলের জন্য অনেক ষড়যন্ত্র করছে। ষড়যন্ত্রকারীরা জানে না বাবুল আখতার খোকসা উপজেলা বাসীর নয়নের মনি , তিনি সকলের কল্যাণের জন্য দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।বঙ্গবন্ধুর আদর্শ কে বুকে ধারণ করে প্রতিনিয়ত খোকসা বাসীর কল্যাণে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।এমন কি তিনি ব্যক্তি গত অর্থায়নে বিভিন্ন স্কুল কলেজের উন্নয়ন করেছেন।অক্লান্ত পরিশ্রম করে খোকসা উপজেলা কে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে গড়ে তুলেছেন। উদ্দেশ্য প্রণীত ভাবে বাবুল আখতারের রাজনৈতিক ভাবমূর্তি ও সুনাম ক্ষুন্ন করতে এক নীলনকশা বাস্তবায়নের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। খোকসা বাসী বলেন বাবুল আখতার খোকসাবাসীর নয়নের মণি। খোকসার গরীব দুখি মানুষের বন্ধু। আওয়ামী লীগের দুর্দিনের নিবেদিত প্রাণ। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে খোকসা বাসির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।যে কুচক্রী মহলটি তাদের রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে যে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে তা কখনো সফল হবে না।খোকসা উপজেলায় সরকারি বরাদ্দকৃত অর্থে উন্নয়ন কাজ না করে আত্মসাতের অভিযোগটি সম্পূর্ন মিথ্যা ভিত্তিহীন দাবি করে তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাবুল আখতার। এ বিষয়ে খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বেতবাড়িয়া ইউনিয়নের সুনামধন্য চেয়ারম্যান বাবুল আখতার লিখিত প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমার বিষয়ে আনীত অভিযোগ টি মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন আমি এ বিষয়ে কোন নোটিশ বা চিঠি পাইনি। আমি শুধু মাছুয়াঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি। আমার মাছুয়াঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উন্নয়নের জন্য দুই লক্ষ টাকার কাজ এসেছিল, সরকারি ভ্যাট বাদ দিয়ে এক লক্ষ আশি হাজার টাকা হয় এই টাকা আমি সম্পুর্ণ আমার স্কুলের কাজে ব্যয় করেছি।আমার স্কুলের কাজে অর্থ আত্মসাৎতের মত কোন ঘটনা ঘটেনি।আমাকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক ভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তিনি আর ও বলেন আমার সুনাম ও রাজনৈতিক ভাবমূর্তি নষ্ট করতে একটি কুচক্রী মহল উঠে পড়ে লেগেছে। রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে আমার বিরুদ্ধে এমন মিথ্যাচার প্রচার করা হচ্ছে। যে কুচক্রী মহলটি রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ প্রচার করছে আমি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।এবিষয়ে দুর্নীতি কমিশনের উপ- পরিচালক জাকারিয়া সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি বলেন আমরা খোকসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল আকতারের বিষয়ে কোন প্রকার তদন্ত করিনি।বাবুল আকতারের বিরুদ্ধে কোন প্রকার ব্যাবস্থা গ্রহণ করিনি। কে বা কাহারা এগুলো করে বেড়াচ্ছে এই বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা।বাবুল আখতার বলেন
আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া সৈনিক। দেশ ও জনগণের সেবায় কাজ করে যাচ্ছি এবং কাজ করে যাব।কোন ষড়যন্ত্রকারির ষড়যন্ত্র সফল হতে দেব না।সত্যের জয় সব সময় হয় ইনশাআল্লাহ সত্যেরি জয় হবে

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর