শিরোনামঃ
এখন টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সোহেল পারভেজের জন্মদিন আজ কুষ্টিয়া ট্রাফিক অফিস বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইবিতে অংশীজনদের সমন্বয় সভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে ইবি হ্যান্ডবল দল ও বাস্কেটবল দলের (চ্যাম্পিয়ন) পদক গ্রহণ। ইবিতে গ্লোবাল সিটিজেনশিপ এন্ড সিভিক এডুকেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত। দেশের সর্ববৃহৎ ব্যাংকিং নেটওয়ার্ক গড়ার প্রত্যয়ে আইএফআইসি ব্যাংক বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে দিয়ে পালিত হলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। জনবাণী পত্রিকায় কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাংবাদিক হৃদয় কুষ্টিয়ায় ফুল বিক্রেতার গলা কাটা লাশ উদ্ধার ইবি’র ৪৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে কাল

বসুন্ধরার ঘর পেয়ে হাসি ফুটল ইলিয়াস-সালমা দম্পতির মুখে

মাহাফুজ
  • আপডেটের সময়। বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৮ টাইম ভিউ

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়ার ইলিয়াস-সালমা দম্পতি চরম দরিদ্র্যে দিনাতিপাত করছিলেন। মাটির দেয়ালের জরাজীর্ণ ঘরে বসবাস ছিল তাঁদের। বৃষ্টির সময় দেয়াল ভেঙে পড়ার ভয়ে ছিলেন তাঁরা। ছোট দুই শিশু নিয়ে যেন কষ্টের সীমা ছিল না।

নুন আনতে পান্তা ফুরানো অবস্থায় ঘর আর করা হয়ে ওঠেনি।
বিষয়টি কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সদস্যরা জানতে পারে এবং খোঁজখবর নিয়ে ঘর নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। এরপর বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘ ইলিয়াসকে নিজের জমিতে একটি টিনের ঘর করে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করে।

ফলশ্রুতিতে আজ বুধবার বিকেলে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় শিল্প গ্রুপ বসুন্ধরার সহায়তায় অসহায়দের স্বাবলম্বী করার উদ্যোগ কর্মসূচিতে ইলিয়াসের হাতে তুলে দেওয়া হয় নির্মাণ করা ঘরের চাবি। ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক জনপ্রিয় লেখক ও কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন ইলিয়াসের হাতে ঘরের চাবি তুলে দেন।

এ সময় তিনি বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় সারা দেশে অসহায়দের স্বাবলম্বী করে তুলতে কাজ করে যাচ্ছি আমরা।
ভালো কাজে সবার পাশে থেকে শুভসংঘ এ কাজ করছে। বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের নির্দেশনায় আমরা সারা দেশে অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি। এসব ভালো কাজ চলমান থাকবে।

এ সময় শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, বসুন্ধরা বিটুমিনের বিভাগীয় এজিএম সাদ্দাম হোসেন, কালের কণ্ঠ কুষ্টিয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক তারিকুল হক তারিক, শুভসংঘ কুষ্টিয়ার প্রচার সম্পাদক এস এম জামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঘর পেয়ে খুশি ইলিয়াস-সালমা দম্পতি বলেন, মাটির ঘরে অনেক কষ্টে ছিলাম। বৃষ্টির সময় মনে হতো মাটির দেয়াল ভেঙে পড়বে। বসুন্ধরা গ্রুপের দেওয়া ঘরটি পেয়ে আমি সে দুঃখ ভুলে গেছি। আল্লাহ বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের মঙ্গল করুন।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর