শিরোনামঃ
একটি অসম প্রেমের অকাল সমাপ্তি ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকা আত্মহত্যা করেছেন কুষ্টিয়া র‌্যাবের অভিযানে ২৮ বোতল ফেনসিডিল সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট নাজমুলের হাতে ভুয়া এডিসি (ডিএমপি) ডিবি আটক ইবিতে ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ হেরোইন সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আগামী ১৪ই আগষ্ট “প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে চিরঞ্জীব, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব” কর্মসূচির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ইবির শেখ রাসেল হলে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের সেরা অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাঁজা সহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। কুষ্টিয়ায় দুটি হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিশ্রুত মথুরাপুর থানা বাস্তবায়ন দাবী

রুমন ইসলাম
  • আপডেটের সময়। সোমবার, ২১ মার্চ, ২০২২
  • ১৩২ টাইম ভিউ

আমিন হাসানঃ কুষ্টিয়া জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় বঙ্গবন্ধু ঘোষিত দৌলতপুর উপজেলার মথুরাপুর থানা প্রতিষ্ঠার বিষয়ে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব। আজ ২১ মার্চ সোমবার কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে বেলা ১০ টায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক সাইদুল ইসলাম। সার্বিক বিষয় উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক শারমিন আখতার। বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডাঃ আনোয়ারুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন খাঁন, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব।
উল্লেখ্য যে, ১৯৭৪ সালে তৎকালীন দৌলতপুর থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান কে মথুরাপুর হাটে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে নকশাল বাহিনী। বিষয়টি সে সময়ের সংসদ সদস্য, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর এ্যাডঃ আজিজুর রহমান আককাস মহান সংসদে উত্থাপন করলে বঙ্গবন্ধু তাৎক্ষণিকভাবে মথুরাপুরে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করেন এবং থানা প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন। মথুরাপুর পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন হয় এবং থানা প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম চলতে থাকে। এরমধ্যে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। জিয়াউর রহমান রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করে মথুরাপুর পুলিশ ফাঁড়ি উচ্ছেদ করেন।
বর্তমানে বঙ্গবন্ধুকন্যা জাতির পিতার প্রতিশ্রুত মথুরাপুর থানা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিশ্রুতি পূরণ, জাতির পিতা ঘোষিত মথুরাপুর থানা বাস্তবায়ন বর্তমান সরকারের জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব বলে মনে করেন সর্বস্তরের মানুষ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর